সোমবার,১৪ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রাজনৈতিক দল পরিচালনা এবং মানিয়ে নেওয়া

প্রকাশিত :
সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০
news-image

লেখক : রহমত উল্যাহ ভূঁইয়া-
একটি রাজনৈতিক দল পরিচালনা করার জন্য বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের প্রয়োজন হয়। সংগঠক, পদধারী, নেতা কর্মী, সমর্থক, ডোনার শ্রেণী, উপদেষ্টা পরিষদ, গবেষণা সেল, প্রচার সেল, সাহিত্য সংস্কৃতি টিম, সহিংসতা প্রতিরোধ টিম। কিন্তুু ইদানিং লক্ষ করা যায় শুধুমাত্র ডোনার শ্রেণী ও উনাদের মনোনীত প্রতরোধ টিম/বল প্রয়োগ টিম দ্বারা প্রায় সবগুলো রাজনৈতিক দল পরিচালিত হয়। বাকি যে শ্রেণী তার সো পিস হিসেবে থেকে যায়।
ফলশ্রæতিতে রাজনীতি চর্চাতো দূরের কথা এক একটা বড় রাজনৈতিক দল বর্তমানে প্রাইভেট লিঃ কোম্পানীতে পরিণত হয়েছে। কারণ লিঃ কোম্পানীগুলোর সিস্টেম হলো মালিক পক্ষ তার স্টাফদের বেতন ভাতা দিয়ে পরিচালিত করবেন আর তার সম্পত্তির কোন ক্ষতির আশংকা হলে তিনি তার নিরাপত্তা বাহিনী দিয়ে বল প্রয়োগ করে সেটি বাধাগ্রস্থ করেন। অদূর ভবিষৎতে এ অবস্থার পরিবর্তনের কোন সম্ভাবনা নাই। তাই মানিয়ে নেওয়া ছাড়া উপায় নাই।
আজ প্রয়াত মাহবুবুল হক শাকিল শাকিল ভাইয়ের পথের পাঁচালি কবিতার লাইনগুলো মনে পড়ছে। “বঙালি মধ্যবিত্ত পরিবারের আরো পাঁচ দশটা সন্তানের মত শুনে আসছি মানিয়ে নাও, মানিয়ে নিতে হয় বাবা।” বেড়ে উঠার সময় যৌথ পরিবারের এক বা আধা টুকরো মাছ বা মাংস বেশী খেতে ইচ্ছে হলে শুনতাম অন্যরাও খাবে এক টুকরোতে মানিয়ে নাও, মানিয়ে নিলাম। পাড়ার সবচেয়ে দস্যি ছেলেটি বিনা কারণে ঘুষি বা চড় ছাপড়া দিলে বড়রা বলতো ওতো একটু দুষ্ট তুমিতো ভাল ছেলে কি করবে বলো মানিয়ে নাও, মানিয়ে নিলাম। তারপর একদিন থর থর আবেগে কাঁপতে কাঁপতে চলে এলাম রাজনীতিতে। দীর্ঘ যাত্রাপথে দেখলাম লড়াইয়ের মুষ্ঠিবদ্ধ হাতের আস্তিনে শুয়ে থাকে আপোষের নরম বিড়াল। যতটা রঙিন হয় স্বপ্ন ঠিক ততটাই ধূসর বাস্তব, বড়রা বললেন রাজনীতির শ্রেষ্ঠতম শিল্পের নাম আপোষ, মানিয়ে নাও নিতে হবে, মানিয়ে নিতে হবে।
একদির রক্তাক্ত হলাম ভালবাসার কারুকার্যময় আঘাতে অপবাক্য নত মস্তকে ধারন করলাম আমারি গেরুয়া বসন পড়ে প্রিয়তমা বললো ভালবাসার একমাত্র প্রতিশব্দ বেদনা। বেদনা প্রাণ করে নীল কন্ঠ হও। মানিয়ে নাও মেনে নিলাম। মনে নিতে নিতে আজ মধ্য চল্লিশে এসে দাড়িয়েছি অন্ধকার খাদের কিনারে এখন মানিয়ে নেওয়া মানে আর কিছু নয় অতলান্ত খাদকে আলিঙ্গন করা। এখনো কি আমারে বলবে “মানিয়ে নাও, মানিয়ে নাও, মানিয়ে নাও।”

 

(কলামটি সম্পূর্ণ লেখকের নিজস্ব মতামত)
লেখক :
সাবেক সদস্য,
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।